1. admin@mannanpresstv.com : admin :
ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগে মানববন্ধন, হাসপাতাল বন্ধ ঘোষণা - মান্নান প্রেস টিভি
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৩:১২ অপরাহ্ন

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগে মানববন্ধন, হাসপাতাল বন্ধ ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৪০ Time View

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার আলো জেনারেল হাসপাতালের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসী। এ সময় হাসপাতালের লোকজন তাদের মারধর করে বলে অভিযোগ করেন তারা। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে হাসপাতালটি সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করেছেন পাবনা সিভিল সার্জন। গতকাল ঈশ্বরদী হাসপাতাল রোডে আলো জেনারেল হাসপাতালের সামনে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভের ঘটনা ঘটে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ৪ঠা জানুয়ারি ঈশ্বরদী পৌর সদরের কলেজ রোড এলাকার ফজলে রাব্বীর গর্ভবতী স্ত্রী অন্তরা খাতুনকে আলো জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওইদিনই সন্ধ্যায় হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. মাসুমা আঞ্জুমান ডানা এবং তার স্বামী ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ডা. শফিকুল ইসলাম শামীমের তত্তা¡বধানে সিজার অপারেশন করা হয়। অপারেশনের পরপরই রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় হাসপাতালের এম্বুলেন্সের মাধ্যমেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পথে তার মৃত্যু হয়।
স্বজনদের অভিযোগ, অ্যানেস্থেসিয়া ভালোভাবে করা হয়নি। চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে।এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের কাছে অভিযোগ দিয়েও কোনো প্রতিকার না পাওয়ায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন তারা। বেলা ১২টার দিকে ফজলে রাব্বীর নিজ বাড়ির সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে আলো জেনারেল হাসপাতালের সামনে গিয়ে মানববন্ধনের চেষ্টা করেন।
এ সময় আব্দুল্লাহ আল মামুনের নামে এক কর্মচারীর নেতৃত্বে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের লোকজন তাদের মারধর করেন। পরে ঈশ্বরদী থানা ও ঈশ্বরদী প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন রোগীর স্বজনরা। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন- নিহত অন্তরার স্বামী ফজলে রাব্বী, মা নাজমা বেগম, শ্বশুর আলহাজ ফারুখ আহমেদ, শাশুড়ি জান্নাতুল ফেরদৌস রুনু, এলাকাবাসী নাসিমা খাতুন, সামিনা খাতুন, তামিম হোসেন প্রমুখ।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ডা. মাসুমা আঞ্জুমান ডানার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। তার স্বামী আলো জেনারেল হাসপাতালের মালিক ও ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শফিকুল ইসলাম শামীম বলেন, রোগীর অ্যাকলামশিয়া হয়েছিল, অপারেশনের পর তার অবস্থার অবনতি হলে আমরা রাজশাহীতে নেয়ার পরামর্শ দেই। রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এখানে আমাদের কোনো অবহেলা বা অপারেশনে ত্রুটি হয়নি।
এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এমন অভিযোগের পরপরই হাসপাতালটি সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানান পাবনা সিভিল সার্জন ডা. শহীদুল্লাহ দেওয়ান। তিনি বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত হাসপাতালটি সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করতে সংশ্লিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছি। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে পরবর্তী ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

Categories

© All rights reserved © 2022 mannanpresstv.com
Theme Customized BY WooHostBD